গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে যুবদল নেতা কর্মীদের অগ্রণী ভূমিকা রাখতে হবে: ডা. শাহাদাত

339

চসিক নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী ডা. শাহাদাত হোসেনের ধানের শীষ প্রতিকের সমর্থনে চট্টগ্রাম মহানগর, উত্তর ও দক্ষিণ জেলা যুবদলের যৌথ উদ্যোগে নগরীতে বিশাল গণমিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

Advertisement

আজ বৃহস্পতিবার (২১ জানুয়ারী) বিকেলে নগরীর জমিয়তুল ফালাহ এলাকা থেকে জাতীয়তাবাদী যুবদল কেন্দ্রিয় কমিটির চট্টগ্রাম বিভাগীয় সহসভাপতি ও চট্টগ্রাম মহানগর যুবদল সভাপতি মোশাররফ হোসেন দিপ্তীর সভাপতিত্বে এবং যুবদল কেন্দ্রিয় কমিটির চট্টগ্রাম বিভাগীয় সহ সাধারণ সম্পাদক ও নগর যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ শাহেদের সঞ্চলনায় অনুষ্ঠিত গণমিছিল শেষে নগরীর টাইগারপাস মোড়ে পথসভায় মিলিত হয়।

এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র প্রার্থী ডা. শাহাদাত হোসেন বলেন, গণতন্ত্র রক্ষায় দেশ ও জাতির স্বার্থে আগামী ২৭ জানুয়ারী অনুষ্ঠিতব্য চসিক নির্বাচনে দল মত নির্বিশেষে চট্টগ্রামের উন্নয়নের স্বার্থে সকলকে ভোট কেন্দ্রে গিয়ে নির্ভিগ্নে ভোটাধিকার প্রয়োগের মাধ্যমে নাগরিক অধিকার প্রয়োগ করতে হবে। তিনি উন্নয়নের ও স্বাধীনতার প্রতীক ধানের শীষে ভোট দিয়ে গণতন্ত্র পুণরুদ্ধারে চট্টগ্রামের যুবদল নেতাকর্মীদের অগ্রণী ভূমিকা পালনের জন্য আহবান জানান।

ডা. শাহাদাত হোসেন বলেন, বিএনপি সবসময় গণতন্ত্রে বিশ্বাসী। দেশ ও জাতির এবং গণতন্ত্রের স্বার্থে বিএনপি নির্বাচনে অংশ নিয়েছে এবং শেষ মূহুর্ত পর্যন্ত বিএনপি নির্বাচনী মাঠে থাকার চেষ্টায় থাকবে। কিন্ত আওয়ামী লীগ ধানের শীষের গণজোয়ার এবং নগরবাসীর মনোভাব বুঝতে পেরে নির্বাচনকে বানচাল করার জন্য কুটকৌশল অবলম্বন করে প্রশাসনকে ব্যবহার করে হামলা মামলা ও প্রচার কাজে বাধা সৃষ্টি করছে।

নির্বাচনকে ভন্ডুল করার চেষ্টায় তারা বুধবার রাতে বিনা উস্কানিতে নাসিমন ভবনের বিএনপি দলীয় কার্যালয়ে হামলা চালায় এবং ককটেল বিস্ফোরণ ও গাড়ী ভাঙচুর করে উল্টো বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের নামে মিথ্যা মামলা দিয়েছে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কেন্দ্রিয় যুবদলের সভাপতি সাইফুল আলম নিরব বলেন, যুব ঐক্য প্রগতির ধারক বাহক জাতিয়তাবাদী যুবদলের জিয়ার সৈনিকদের মাঠে অবস্থান করে আগামী ২৭ জানুয়ারী ধানের শীষের বিজয় ছিনিয়ে আনতে নিরলসভাবে কাজ করতে হবে। হারানো গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে এবং বীর চট্টলার উন্নয়নের স্বার্থে ডা. শাহাদাত হোসেনের মত যোগ্য প্রার্থীকে বিজয় করে আনতে হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কেন্দ্রিয় যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু বলেন, দেশের সকল আন্দোলন সংগ্রামে জাতীয়তাবাদী যুবদল রাজপথে থেকে মানুষের মুক্তি এবং গণতন্ত্রের পক্ষে সক্রিয় ভূমিকা পালন করে আসছে। অতীতের ন্যায় এবারও যুবদলকে মাঠে থেকে সকল ভয়ভীতিকে উপেক্ষা করে ভোট কেন্দ্রে অবস্থান করে ধানের শীষের বিজয় নিশ্চিত করতে হবে।

পথসভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, কেন্দ্রিয় যুবদলের সিনিয়র সহসভাপতি মোরতাজুল করিম বাদরু, কেন্দ্রিয় সহসভাপতি ইউসুফ বিন জলিল, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নূরুল ইসলাম নয়ন, যুগ্ম সম্পাদক মাহফুজুর রহমান মিনার, কেন্দ্রিয় যুবদলের সহ দপ্তর সম্পাদক এড. আজিজুর রহমান।

বক্তব্য রাখেন, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা যুবদলের সভাপতি মো. হাসান জসিম, দক্ষিণ জেলা যুবদলের সভপতি মো. শাহজাহান, সাধারণ সম্পাদত মো. আজগর, উত্তর জেলা সাধারণ সম্পাদক এসএ মুরাদ চৌধুরী, মহানগর যুবদলের সিনিয়র সহসভাপতি ইকবাল হোসেন, সহসভাপতি আজমল হুদা রিংকু, নুর আহমদ গুড্ডু, এস এম শাহ আলম রব, এম এ রাজ্জাক, ফজলুল হক সুমন, জাহাঙ্গীর আলম, আব্দুল করিম, আব্দুল গফুর বাবুল, সাহাবুদ্দিন হাসান বাবু, ম হামিদ, মো. মুসা, মিয়া মো. হারুন, মনিরুল হাসান সিদ্দিকী, নাছির উদ্দিন চৌধুরী নাছিম, হাসান মুরাদ, আবু সুফিয়ান, জাহেদুল হাসান বাবু, অরুপ বড়ুয়া, মো. আলী সাকি, মো. মনিরুজ্জামান মনির, সি. যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোশারফ হোসাইন, মোজাম্মেল হক. যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান মাসুম, সৈয়দ মঞ্জুর হোসেন, আমান উল্লাহ আমান, হুমায়ুন কবির, ইকবাল পারভেজ, রাশেদুল হাসান লেবু, আব্দুল্লাহ আল টিটু, এরশাদ হোসেন, তাজুল ইসলাম তাজু, দীপঙ্কর ভট্টাচার্য, সেলিম উদ্দিন রাসেল, তৌহিদুল ইসলাম রাসেল, নগর যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক এমদাদুল হক বাদশা, রাজন খান, ওমর ফারুক, হেলাল হোসেন, গুলজার হোসেন, সহ সাধারণ সম্পাদক ফেরদৌস আলম, আসাদুর রহমান টিপু, জাহাঙ্গীর আলম বাচা, ওসমান গণি, শাহজালাল পলাশ, সাইফুদ্দিন মো. মারুফ, আহাদ আলী সায়েম, জমির উদ্দিন আহমেদ মানিক, জাফর আহমেদ খোকন, মো. ইয়াছিনসহ নগর উত্তর ও দক্ষিণ জেলা যুবদলের সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য/সহ সম্পাদক/ সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

 

Advertisement