নাইক্ষ্যংছড়িতে বন্দুকযুদ্ধে দুই রোহিঙ্গা নিহত, ইয়াবা ও অস্ত্র উদ্ধার

195

সশস্ত্র রোহিঙ্গা ইয়াবা পাচারকারীদের সঙ্গে সীমান্তরক্ষী বিজিবির বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটেছে। এতে দুইজন রোহিঙ্গা ইয়াবা পাচারকারীর মৃত্যু ঘটেছে। ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করা হয়েছে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা, অস্ত্র ও গুলি। গতকাল রোববার মধ্যরাতে সীমান্তের গর্জনবনিয়া পাহাড়ি জঙ্গলে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

Advertisement

কক্সবাজার-৩৪ ব্যাটালিয়ান বিজিবির সহকারী পরিচালক ইয়ার হোসেন বন্দুকযুদ্ধ ও নিহতের ঘটনা নিশ্চিত করেছেন। বন্দুকযুদ্ধে নিহত রোহিঙ্গারা হচ্ছে, উখিয়ার কুতুপালং লাম্বাশিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্প-১ এর বি/৩ ব্লকের ফোরকান আহমদের পুত্র জোবায়ের (২৮) ও একই ক্যাম্পের সি-ব্লকের মৃত আমীর হামজার পুত্র দীল মোহাম্মদ (২৫)।

বিজিবি জানিয়েছে, নাইক্ষ্যংছড়ি ঘুমঘুমের গর্জনবুনিয়া ৪০নং সীমানা পিলারের চাকমাপাড়া ব্রীজের পূর্ব পার্শ্বে পাহাড়ের ঢালুতে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে এ ঘটনা ঘটে। রোববার রাত সাড়ে ১১ টার দিকে ৫/৬ জনের ১টি দল পাহাড়ি এলাকা দিয়ে বাংলাদেশের দিকে আসতে দেখে তাদেরকে চ্যালেঞ্জ করলে তারা টহল দলকে লক্ষ্য করে এলোপাথাড়ি গুলি বর্ষণ শুরু করে। বন্দুকযুদ্ধের ঘটনায় দুই বিজিবি সদস্যও আহত হয়েছে।

এ সময় টহল দল তাদের জানমাল রক্ষার্থে পাল্টা গুলি করে। পরবর্তীতে ইয়াবা পাচারকারীরা পিছু হটলে ঘটনাস্থল তল্লাশি করে দুইজনকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে উখিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনাস্থল থেকে ১ লাখ ইয়াবা টেবলেট, দেশীয় তৈরি একনলা বন্দুক ২ টি, তাজা কার্তুজ ৪ টি ও খোসা ২ টি জব্দ করা হয়।

এ ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে বিজিবি জানায়।

Advertisement