বিএনপি দেশ ধ্বংস করার পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে: চট্টগ্রামে যুবলীগ চেয়ারম্যান

31

যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্ পরশ বলেছেন, বিএনপির কোনো নেতার রাষ্ট্র পরিচালনা করার কোনো যোগ্যতা নাই। না আছে খালেদা জিয়ার, না আছে তার গুণধর পুত্র তারেকের। দক্ষতা নাই বলে আজ তারা এ দেশকে ধ্বংস করার পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে।

Advertisement

মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) চট্টগ্রাম নগরের কাজীর দেউড়ির ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টারে যুবলীগের প্রস্তুতি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

আগামী ৪ ডিসেম্বর পলোগ্রাউন্ডে প্রধানমন্ত্রীর জনসভা সফল করতে বিভাগীয় সমাবেশের আয়োজন করে যুবলীগ।

শেখ ফজলে শামস্ পরশ বলেন, বিএনপি এদেশে নৈরাজ্য সৃষ্টি করে, ভয়ভীতি দেখিয়ে, হয়তো তাদের বিদেশি প্রভুদের দৃষ্টি আকর্ষণ করা যাবে। কিন্তু কোনো বিদেশি প্রভুদের নির্দেশনায় বা হস্তক্ষেপে বাংলাদেশে নির্বাচন হবে না। সরকারও পরিবর্তন হবে না।

তিনি বলেন, ক্ষমতায় আসতে হলে প্রথমে তাদের দেশের মানুষের কাছে মাফ চাইতে হবে। ২০০৬ সাল পর্যন্ত এদেশের মানুষের ওপর অত্যাচার চালিয়েছে। ভয়ভীতি দেখিয়ে বোমাবাজি করে দেশ চালোনো যায় না। বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের নেতারা তাদের (বিএনপি) উদ্দেশ্য হাসিল করতে দিবে না। তাই আমি আমাদের নেতাদের নির্দেশ দিচ্ছি আপনারা রাজপথে থাকবেন। আপনাদের সাথে নিয়েই এই সন্ত্রাসীদের আমরা শায়েস্তা করবো।

বিএনপি আমাদের প্রজন্মকে বিকৃত ইতিহাস শেখানোর চেষ্টা করেছেন উল্লেখ করে যুবলীগ চেয়ারম্যান বলেন, সঠিক ইতিহাস থেকে একটি প্রজন্মকে বঞ্চিত করেছেন আপনারা। কোনো দেশপ্রেমী রাজনৈতিক দলের পক্ষে এমন লজ্জাজনক কাজ করা অসম্ভব। আপনাদের এ ব্যাপারে আগে জবাবদিহি করতে হবে। কেন আপনারা একটি প্রজন্মকে মিথ্যা ইতিহাসের শিক্ষা দিলেন? আপনাদের এই সব অপকর্মের জবাব যুবসমাজ চায়। যুবলীগের নেতাকর্মীদের প্রতি অনুরোধ, আপনারা রাজপথে থাকবেন। রাজপথে থেকে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে এই সন্ত্রাসী এবং ভণ্ড রাজনীতিবিদকে সায়েস্তা করবেন। ইনশাল্লাহ এদের সন্ত্রাস এবং নৈরাজ্যের দাঁতভাঙ্গা জবাব দেব।

সমাবেশে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, বিএনপির অনেক নেতাকর্মী জোশে হুঁশ হারিয়ে ফেলেছে। আমি শুধু একটা কথাই বলবো জোশে হুঁশ হারায়েন না। বেহুঁশ হইয়েন না।

আওয়ামী যুবলীগ আয়োজিত এ সভায় মাহবুব উল আলম হানিফ আরও বলেন, বিএনপি মিথ্যা বলে জনগণকে বিভ্রান্ত করতে চায়। দুর্নীতিবাজ, সন্ত্রাসী দলকে সন্ত্রাসী বললে তাদের গা জ্বালা করে। এ বিএনপি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যা করার বহু পরিকল্পনা ও চেষ্টা করেছে। কিন্তু আল্লাহ রক্ষা করেছেন। আমাদের হাজার হাজার নেতাকর্মীদের হত্যা করা হয়েছে।

বিএনপির আমলে বিদ্যুৎ উৎপাদনের বিপর্যয় ঘটেছে। কিন্তু শেখ হাসিনার হাত ধরে সকলের ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছেছে। উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়েছে। এখন আর আমাদেরকে কেউ ভিক্ষুকের জাতি বলে না। ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধের কারণে বিশ্বে মন্দা সৃষ্টি হয়েছে। আমরা এ সমস্যা কাটিয়ে উঠবো। বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালীন দেশের কোনো উন্নয়ন করতে পারেনি, তাই তারা দেশের উন্নয়ন অগ্রগতি চায় না। যতদিন শেখ হাসিনা আছে ততদিন বাংলাদেশের মানুষের কোনো চিন্তার কারণ নেই। বিএনপির জামায়াতের মিথ্যাচারে দেশের মানুষ বিভ্রান্ত হবে না।

প্রধানমন্ত্রীর জনসভা নিয়ে চট্টগ্রামসহ ১১ জেলার যুবলীগের প্রস্তুতি সভায় যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মো. মাইনুল হোসেন খান নিখিলের সঞ্চালনায় সভাপতিত্ব করেন যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্ পরশ।

এসময় সভায় আরও বক্তব্য রাখেন আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মঞ্জুর আলম শাহীন, মজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সন, এম শাহাদাত হোসেন তসলিম, আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ বদিউল আলম, আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নাঈম, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু মনির মো. শহিদুল হক রাসেল, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. সাইফুর রহমান সোহাগ, মশিউর রহমান চপল, মীর মোহাম্মদ মহি উদ্দিন, মো. আব্দুল হাই, আদিত্য নন্দী, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য নিয়াজ মোর্শেদ এলিট প্রমূখ।

Advertisement