তিউনিশিয়ায় অভিবাসীবাহী নৌকাডুবি, মৃত্যু ৩৯

279

ভূমধ্যসাগরের তিউনিশিয়া উপকূলে অভিবাসীবাহী নৌকা ডুবে ৩৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এসময় জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে অন্তত ১৬৫ জনকে।

Advertisement

মঙ্গলবার (০৯ মার্চ) এই ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

এক বিবৃতিতে তিউনিশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, ভূমধ্যসাগর দিয়ে ইউরোপের দেশ ইতালির লাম্পেপুসা দ্বীপে যাওয়ার সময় অভিবাসীবাহী দুটি নৌকা তিউনিশিয়া উপকূলে ডুবে যায়।

উদ্ধারকারীরা এখন পর্যন্ত ১২২ জনকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে। যাদের অধিকাংশই আফ্রিকা অঞ্চলের মানুষ। এছাড়া ওই এলাকায় থাকা মাছ ধরার নৌকাগুলো আরও ১৯ জনকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে।

আরও অনেকে নিখোঁজ থাকতে পারে এমন তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান অব্যাহত রেখেছে দেশটির কোস্টগার্ড। গত দুই মাসে ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইতালিতে প্রবেশ করেছে প্রায় চার হাজার অভিবাসী। এর মধ্যে তিউনিশিয়া দিয়েই ঢুকেছে এক হাজার।

তিউনিসিয়ার বন্দর নগরী সফ্যাক্সের নিকটবর্তী সমুদ্র উপকূলরেখা দিয়ে আফ্রিকা ও মধ্য প্রাচ্যের সংঘাত ও দারিদ্র্য থেকে পালিয়ে আসা এসব অভিবাসী ইউরোপে উন্নত জীবনের আশায় যাওয়ার সময় এই দুর্ঘটনা ঘটে।

২০১৯ সালে প্রতিবেশী লিবিয়া থেকে ইউরোপের উদ্দেশ্যে যাওয়ার সময় তিউনিসিয়ার উপকূলে নৌকা ডুবে প্রায় ৯০ জন আফ্রিকান অভিবাসী মারা গিয়েছিল।

২০২০ সালে তিউনিসিয়াতে অভিবাসীদের সংখ্যা পাঁচগুণ বেড়ে ১৩ হাজারে পৌঁছেছে। এতে করে তিউনিসিয়ায় অর্থনৈতিক সংকট বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে জানিয়েছে একটি মানবাধিকার সংস্থা।

Advertisement