লক্ষ্মীপুরে ধর্ষিত শিশু চার মাসের অন্তঃসত্ত্বা

183

অ আ আবীর আকাশ,লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি : লক্ষ্মীপুরের চররমনীতে চৌদ্দ বছরের এক শিশু কন্যা একই এলাকার বখাটে দ্বারা ধর্ষিত হয়ে সাড়ে ৪ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার ঘটনা ঘটে।

Advertisement

জেলা সদরের চররমণী ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের চর আলী হাসান গ্রামের মোল্লা বাড়ির স্বপনের ছেলে শরীফ (১৯) পাশের বাড়ির শিশুকন্যা(১৪)কে দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন ভয়-ভীতি দেখিয়ে ধর্ষণ করে। এতে ওই শিশুকন্যা সাড়ে চার মাসের অন্তঃসত্ত্বা বলে মেডিকেল চেকআপে ধরা পড়ে।

ভিকটিম শিশুকন্যা জানায় শরীফদের ঘরের ফ্রিজে রাখা মাছের জন্য গেলে শরীফ একলা ঘরে মুখ চেপে শিশুকন্যাকে বিভিন্ন ভয়-ভীতি দেখিয়ে ধর্ষণ করে। এ কথা কাউকে বলে দিলে শিশুকন্যাকে জানে মেরে ফেলার ভয় দেখায় শরীফ। এভাবে দীর্ঘদিন ধরে শিশু কন্যাকে ধর্ষণ করে আসছিল বলে ভিকটিম জানায়।

এতে করে শিশু কন্যার শারীরিক পরিবর্তন দেখে তার মা গতকাল ডাক্তার দেখালে ডাক্তারী পরীক্ষায় অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার বিষয়টি ধরা পড়ে।

গতকাল সন্ধ্যার পরে বিষয়টি জানাজানি হলে শরীফ পালিয়ে যায়, তবে শরীফের মা শাহিনুর আক্তার শানু ঘটনাটি স্বীকার করে বলেন-‘ আমার ছেলে এমন কাজ করেছে এতে আমি লজ্জিত! আমার আর কি বলার আছে! এর কিছুক্ষণ বাদে সুযোগ বুঝে তিনিও পালিয়ে যান।

স্থানীয় কয়েকজন মুরুব্বী নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানিয়েছেন- শরীফ একটা দুশ্চরিত্র খারাপ প্রকৃতির ছেলে। সে যাকে তাকে মারধোর করতে উদ্যত হয়ে তেড়ে আসে। সে নারী লোভী বখাটে।

ভিকটিম শিশুকন্যার বড় বোন বলেন-‘আমরা এখন কী করবো! আমাদের তো কেউ নেই, আমরা বড় গরিব মানুষ, অসহায় মানুষ। আমরা এর উপযুক্ত বিচার চাই।’

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য স্বপন বলেন-‘আমাকে এ ঘটনা কেউ জানায়নি, আপনার কাছে শুনেছি। ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক এর উপযুক্ত শাস্তি হওয়া উচিত।’

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ইউসুফ ছৈয়াল বলেন- ‘আমি লোক মারফৎ ঘটনাটি শুনেছি। তবে অভিভাবকের কেউ আমাকে বিষয়টি জানায় নি। ছেলেটা নাকি খুব খারাপ, তার শাস্তি হওয়া উচিত।’

সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন বলেন এ বিষয়ে-‘কেউ এখনো অভিযোগ করেনি, অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

Advertisement