বোয়ালখালীতে লাশবাহী এ্যাম্বুলেন্স দাঁড় করিয়ে ছিনতাই!

254

চট্টগ্রামের বোয়ালখালীতে একটি লাশবাহী এ্যাম্বুলেন্স দাঁড় করিয়ে মৃত ব্যক্তির স্বজনদের কাছ থেকে মোবাইল, নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

Advertisement

সোমবার (১১ জানুয়ারি) ভোরে উপজেলার কধুরখীল খোকার দোকান এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে চরণদ্বীপ ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মো. সাদ্দাম জানান, পশ্চিম চরণদ্বীপ মাহবুব চেয়ারম্যান বাড়ীর তোফায়েল আহমেদের ছেলে মো.ইলিয়াস (৫৫) নগরীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রবিবার (১০ জানুয়ারি) দিবাগত রাতে মারা যান। এরপর তার লাশ এ্যাম্বুলেন্সে করে পশ্চিম চরণদ্বীপ নিয়ে আসার পথে কধুরখীল খোকার দোকান এলাকায় একটি টেম্পু সড়কে আড়াআড়িভাবে দেখে এ্যাম্বুলেন্সটি দাঁড়িয়ে যায়। এসময় ছিনতাইকারীরা ধারালো অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে এ্যাম্বুলেন্সে বসা মো.ইলিয়াসের স্ত্রী, মেয়ে ও নিকট আত্মীয়দের স্বর্ণালংকার, মোবাইল ও টাকা ছিনিয়ে নেয়।

তিনি বলেন, সোমবার দুপুর ২টায় মরহুম মো.ইলিয়াসের নামাজে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন করা হয়েছে।

ছিনতাইয়ের শিকার তাসনিয়া সুলতানা সুইটি জানান, রবিবার দিবাগত রাত ১টার দিকে তার বাবা (মুহাম্মদ ইলিয়াস) মারা যান। তাকে একটি এ্যাম্বুলেন্স করে বাড়িতে নিয়ে আসার পথে একটি সিএনজি টেম্পু কধুরখীল খোকার দোকান এলাকায় এ্যাম্বুলেন্সের গতিরোধ করে। মুখে রুমাল বাঁধা ৭জন ব্যক্তি সিএনজি টেম্পু থেকে নেমে এ্যাম্বুলেন্সের দরজা ধাক্কাতে থাকে এক পর্যায়ে দরজা খুলে নগদ অর্থ, স্বর্ণালংকার ও মোবাইল ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে কধুরখীল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শফিউল আজম শেফু বলেন, ঘটনাটি খুবই মর্মান্তিক। বিষয়টি শোনার পর থেকে গ্রাম্য পুলিশ ও মেম্বার দিয়ে ঘটনা সত্য উৎঘাটন করার চেষ্টা করছি।

এ ঘটনা সম্পর্কে জানতে চাইলে বোয়ালখালী থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ আব্দুল করিম জানান, এ বিষয়ে কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। তবে পাওয়া গেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Advertisement