চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস পালন

22

চট্টগ্রাম ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের উদ্যোগে বিশ্ব নিউমোনিয়া দিবস উদযাপন উপলক্ষে র‌্যালি পরবর্তী আলোচনা সভা গতকাল ১৪ নভেম্বর সোমবার সকালে হাসপাতালের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য বিষয় হচ্ছে-‘আগামীতে নিজেকে সুরক্ষায় ডায়াবেটিসকে জানুন’।

Advertisement

জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ও উপ-পরিচালক ডা. সেখ ফজলে রাব্বির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবসের আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মোস্তফা জামাল হায়দার, কনসালটেন্ট (অ্যানেস্থেসিয়া) ডা. রাজদ্বীপ বিশ্বাস, কনসালট্যান্ট (শিশু) ডা. রেজিনা ইসলাম, কনসালট্যান্ট (কার্ডিওলজি) ডা. মোহাম্মদ আকরাম, কনসালটেন্ট (মেডিসিন) হামিদুল্লাহ মেহেদী, কনসালটেন্ট (গাইনী) ডা. রওশন আরা, কনসালটেন্ট ডা. মৌমিতা দাশ প্রমূখ। সভায় মাল্টিমিডিয়ার মাধ্যমে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ডায়াবেটলজিষ্ট ডা. ওয়াহিদ চৌধুরী। হাসপাতালের বিভিন্ন ওয়ার্ডের চিকিৎসক, নার্স ও কর্মচারীগণ এসময় উপস্থিত ছিলেন।

সভাপতির বক্তব্যে চট্টগ্রাম ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ও উপ-পরিচালক ডা. সেখ ফজলে রাব্বি বলেন, সারাবিশ্বে এখন ডায়াবেটিস মহামারী আকারে দেখা দিয়েছে। এটা একটা নিরব ঘাতক রোগ। নিয়মিত হাঁটার পাশাপাশি খাদ্যাভাস পরিবর্তন করতে হবে। নিজেকে সুরক্ষায় ডায়াবেটিসকে সচেতন থাকতে হবে।

তিনি বলেন, ডায়াবেটিস পৃথিবীতে এখন ৫০ কোটি লোক ডায়াবেটিসে ভুগছেন। আমাদের বাংলাদেশে প্রায় দেড় কোটি লোক ডায়াবেটিসে ভুগছেন। এর মধ্যে ৫০ শতাংশ লোক জানে না তাদের মধ্যে ডায়াবেটিস আছে। বাংলাদেশে ২০২১ সালে ৮ জনের ১ জন ডায়াবেটিস রোগী ছিলো। কিন্তু ২০৪৫ সালে ৭ জনের ১ জন ডায়াবেটিস রোগী হবে। বাংলাদেশে ডায়াবেটিসের মাত্রা ৭ এর নিচে থাকলে স্বাভাবিক ধরা হয়। কিন্তু আক্রান্ত রোগীর মধ্যে মাত্র ২৫ শতাংশ ৭ এর নিচে।

Advertisement