যে দোয়া পড়লে আপনার জন্য জান্নাত ফরিয়াদ করবে

50

যে দোয়া পড়লে আপনার জন্য জান্নাত ফরিয়াদ করবে
জান্নাত লাভের জন্য ঈমান-আমলের পাশাপাশি দোয়ার শিক্ষা রয়েছে হাদিসে। আসলে আল্লাহ তাআলা চান, বান্দা বেশি বেশি দোয়া করুক। আকাঙ্ক্ষিত বিষয়গুলো অনুনয়-বিনয়ের সঙ্গে মহান আল্লাহর কাছে তুলে ধরুক। আর আল্লাহ তাআলা বান্দার দোয়া কবুল করতে পছন্দ করেন। আল্লাহ তাআলা ইরশাদ করেছেন, ‘তোমরা আমাকে ডাকো, আমি তোমাদের ডাকে সাড়া দেব।’ (সুরা মুমিন: ৬০)

Advertisement

জান্নাত মুমিনের আকাঙ্ক্ষিত ও সর্বশেষ ঠিকানা। বিভিন্ন বর্ণনায় দেখা যায়, জান্নাত কামনা করে এবং জাহান্নাম থেকে মুক্তি চেয়ে দোয়া করতে উৎসাহিত করা হয়েছে মুমিনদের। বান্দা যখন আল্লাহ তাআলার কাছে বারবার জান্নাত চেয়ে দোয়া করেন তখন জান্নাতও তার জন্য আল্লাহর কাছে দোয়া করে।

হাদিসে এসেছে, হজরত আনাস বিন মালিক (রা.) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসুলুল্লাহ (স.) ইরশাদ করেছেন- مَنْ سَأَلَ اللَّهَ الْجَنَّةَ ثَلاَثَ مَرَّاتٍ قَالَتِ الْجَنَّةُ اللَّهُمَّ أَدْخِلْهُ الْجَنَّةَ . وَمَنِ اسْتَجَارَ مِنَ النَّارِ ثَلاَثَ مَرَّاتٍ قَالَتِ النَّارُ اللَّهُمَّ أَجِرْهُ مِنَ النَّارِ ‘কোনো ব্যক্তি যদি আল্লাহর কাছে তিনবার জান্নাতের দোয়া করে, জান্নাত তখন বলে, ’হে আল্লাহ একে জান্নাতে দাখিল করে দাও।’ আর কোনো ব্যক্তি যদি জাহান্নাম থেকে তিনবার পানাহ চায়, তখন জাহান্নাম বলে, ’হে আল্লাহ একে জাহান্নাম থেকে পানাহ দিয়ে দাও।’ (জামে’ তিরমিজি: ২৫৭২)

জান্নাত লাভের দোয়া
জান্নাত লাভ ও জাহান্নাম থেকে মুক্তির জন্য এই দোয়াটি করতে পারেন—اللَّهُمَّ إنِّي أَسْأَلُكَ الْجَنَّةَ وَاعوذ بِكَ مِنَ النَّارِ উচ্চারণ: ‘আল্লাহুম্মা ইন্নি আসআলুকাল জান্নাহ, ওয়া আঊযুবিকা মিনান্নার।’ অর্থ: ‘হে আল্লাহ আমি আপনার কাছে জান্নাত কামনা করছি এবং জাহান্নাম থেকে আপনার কাছে আশ্রয় প্রার্থনা করছি।’

অথবা এই দোয়াটি করবেন— اللَّهُمَّ إنِّي أَسْأَلُكَ الْجَنَّةَ وَأَسْتَجِيْرُ بِكَ مِنَ النَّارِ উচ্চারণ: ‘আল্লাহুম্মা ইন্নি আসআলুকাল জান্নাতা ওয়আসতাজীরু বিকা মিনান্নার।’ অর্থ: ‘হে আল্লাহ! নিশ্চয় আমি তোমার নিকট জান্নাত চাচ্ছি এবং জাহান্নাম থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করছি।’ (আবু দাউদ, ইবনে মাজাহ: ২/৩২৮)

আল্লাহ তাআলা আমাদের উল্লেখিত দোয়াগুলোর মাধ্যমে সবসময় জান্নাত চেয়ে আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

Advertisement