যুক্তরাজ্যের নতুন প্রধানমন্ত্রী লিজ ট্রাস

23

যুক্তরাজ্যের ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল কনজারভেটিভ পার্টির নেতৃত্বের দৌড়ে ঋষি সুনাককে হারিয়েছেন লিজ ট্রাস। আর এর মধ্য দিয়ে দেশটির পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন তিনি। সোমবার (৫ সেপ্টেম্বর) ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টির নেতা ও ব্রিটেনের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী মনোনীত করা হয়েছে ট্রাসকে।

Advertisement

কনজারভেটিভ পার্টির নেতা নির্বাচিত হওয়ায় আগামীকাল যুক্তরাজ্যের সরকার গঠনের আমন্ত্রণের জন্য বালমোরালে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের সাথে সাক্ষাৎ করবেন লিজ ট্রাস। এর ফলে তিনি মঙ্গলবার দেশটির নতুন প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পাবেন।

দেশটির বর্তমান পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিজ ট্রাস আর সাবেক অর্থমন্ত্রী ভারতীয় বংশোদ্ভূত ঋষি সুনাকের গত কয়েক সপ্তাহের ব্যাপক তিক্ততা ও বিভক্ত নেতৃত্বের প্রতিদ্বন্দ্বিতার পর সোমবার কনজারভেটিভ পার্টির নেতা নির্বাচনে ভোটাভুটি হয়েছে।

সেই নির্বাচনে কনজারভেটিভ পার্টির সদস্যদের ভোটে শীর্ষে উঠে আসেন লিজ ট্রাস। ৮১ হজাজার ৩২৬ ভোট পেয়ে কনজারভেটিভ দলীয় প্রধান নির্বাচিত হয়েছেন তিনি। আর তার প্রতিদ্বন্দ্বী ঋষি সুনাক পেয়েছেন ৬০ হাজার ৩৯৯ ভোট।

কনজারভেটিভ পার্টির ভোটের ফল ঘোষণার পর লিজ ট্রাস তার প্রথম ভাষণে বলেছেন, ব্রিটিশ অর্থনীতিকে চাঙ্গা করা এবং কর কমানোর জন্য বলিষ্ঠ পরিকল্পনা রয়েছে তার।

লিজ ট্রাসের জয়ে ব্রিটেনে অবসান ঘটল বরিস জনসনের শাসনের। টানা কয়েক মাস ধরে নানামুখী কেলেঙ্কারি এবং সমালোচনার পর গত জুলাই মাসে তিনি পদত্যাগের ঘোষণা দিতে বাধ্য হন।

রয়টার্স বলছে, সোমবার নতুন প্রধানমন্ত্রীর নাম ঘোষণার পর মঙ্গলবার বিজয়ী প্রার্থী ব্রিটিশ রানি এলিজাবেথের সাথে দেখা করতে স্কটল্যান্ডে যাবেন। সেখানে নতুন নেতাকে সরকার গঠন করতে বলবেন রানি।

ব্রিটেনের নতুন প্রধানমন্ত্রী লিজ ট্রাস বর্তমানে ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্বপালন করছেন। একটি সরকারি স্কুলে পড়াশোনা করা ৪৭ বছর বয়সী ট্রাসের বাবা ছিলেন অংকের অধ্যাপক এবং মা একজন নার্স। ট্রাস অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে দর্শন, রাজনীতি এবং অর্থনীতি নিয়ে পড়াশোনা করেছেন।

 

Advertisement