চট্টগ্রাম সমিতি কানাডার অভিষেক ও পুর্ণমিলনী

56

চট্টগ্রাম সমিতি-কানাডার অভিষেক ও পুর্ণমিলনী অনুষ্ঠান গত ১৯ জুন (রোববার) টরেন্টোর ৯নং ডজ রোডের কানাডিয়ান লিজিওন হলে বিশিষ্ট সংগঠক বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইলিয়াস মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।

Advertisement

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কানাডার কনস্যুলার জেনারেল লুৎফর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন অন্টারিও পার্লামেন্টের সদস্যা ডলি বেগম।

বক্তব্য রাখেন প্রফেসর ড. শাহাদাত হোসেন খান, প্রফেসর ড. কাজী সদরুল হক, সংগঠনের যুগ্ম আহবায়ক মোহাম্মদ হাসান, অভিষেক ও ঈদ পূর্ণমিলনী অনুষ্ঠানের আহ্বায়ক মাহবুবুল ইসলাম চৌধুরী সাইফুল, আজিজুর রহমান প্রিন্স প্রমুখ।
সভার শুরুতে সাম্প্রতিক সময়ে সীতাকুণ্ডে মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ও দেশে বন্যায় যারা প্রাণ হারিয়েছেন তাদের শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি চট্টগ্রাম সমিতি-কানাডা সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। একইসাথে নিহতদের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

অভিষেক ও পুর্ণমিলনী অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, এ ধরণের মিলন মেলার মাধ্যমে প্রবাসে সৌহার্দ্য, ভ্রাতৃত্ববন্ধন দৃঢ় হয়। বক্তারা অনুষ্ঠানের ভূয়সী প্রশংসা করে চট্টগ্রাম সমিতি-কানাডার যাত্রাকে স্বাগত জানান। এই সংগঠন আগামীতে অত্র কমিউনিটিতে একটা সফল ও অনুকরণীয় সংগঠন হবে বলে সবাই আশা ব্যক্ত করেন।

বক্তারা সিলেটে বন্যায় অসহায় মানুষের সাহায্যার্থে সকলকে এগিয়ে আসার আহবান জানান।

অনুষ্ঠানে টরোন্টো ছাড়াও মিল্টন, হ্যামিলটন, ওকভিল, কিচেনার, পিটারবোরো, মন্ট্রিয়েল থেকেও অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে বিশ্ব বাবা দিবস উপলক্ষে কমিউনিটির প্রফেসর ড. শাহাদাত হোসেন খান, প্রফেসর ড. কাজী সদরুল হক, বিশিষ্ট নাট্যব্যক্তিত্ব মোহাম্মদ হাবীবুল্লাহ দুলাল, বীর মুক্তিযোদ্ধা ড. জয়নাল আবেদীন, একাউন্ট্যান্ট আবু তৈয়ব ও বিশিষ্ট সংগঠক এমদাদ হোসেন চৌধুরীকে আজীবন সম্মাননা স্মারক তুলে দেন সংগঠনের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইলিয়াস মিয়া।

Advertisement